করোনায় আক্রান্ত স্ত্রীর 'গায়ে হাত দেয়ায়' ডাক্তারকে খুন করলো স্বামী!

করোনা ভাইরাসের মহামারী পরিস্থিতির মধ্যে করোনায় আক্রান্ত স্ত্রী-কে যৌন হয়রানির ঘটনায় এক ডাক্তারকে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে তার স্বামীর বিরুদ্ধে। সম্প্রতি ভারতের উত্তরপ্রদেশের ভাদোহি জেলায় এ ঘটনা ঘটে।



ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, বেশ কিছুদিন আগে অসুস্থ স্ত্রী-কে বাড়ির কাছাকাছি একটি হাসপাতালে নিয়ে যায় ওই গৃহবধূর স্বামী৷ ওই মহিলার শরীরে করোনার উপসর্গ থাকায় তাদের দুজনের করোনা টেস্ট করা হলে রিপোর্টে তাদের দুজনেরই করোনা পজিটিভ আসে। এরপর থেকে গত ৯ দিন যাবত ওই গৃহবধু ও তার স্বামী হাসপাতালের আইসোলেশনে ছিলেন।

এরই মাঝে ওই স্বামী গতকাল রাতে হাসপাতালে কর্মরত এক ডাক্তারকে হাসপাতালের ৭ তলার বারান্দা থেকে ধাক্কা দিয়ে নিচে ফেলে দিয়ে খুন করেছেন।

দেখে নিন ওই স্বামীর স্বীকারোক্তিমূলক ভিডিও

প্রাথমিক ভাবে খুনি স্বামী জানিয়েছেন, ওই ডাক্তার পরীক্ষা করার নামে প্রায়ই তার স্ত্রী'র শরীরের স্পর্শকাতর অংশে হাত দিতেন। তার স্ত্রী অস্বস্তি বোধ করায় বারবার ওই ডাক্তারকে সংযত হতে বললেও তিনি শুনেননি। তিন থেকে চার দিন একই ঘটনা ঘটার পর ওই স্ত্রী তার স্বামীকে সব খুলে বলেন। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে ওই স্বামী লম্পট ডাক্তারকে বারান্দায় ডেকে নিয়ে সুযোগ বুঝে ধাক্কা দিয়ে নিচে ফেলে দেন। এতে ঘটনাস্থলেই ওই ডাক্তার মারা যান। হাসপাতালের সিসিটিভি ক্যামেরায় এই খুনের দৃশ্য ধরা পরেছে।

সিসিটিভি ফুটেজ থেকে দেখে নিন ওই খুনের ভিডিও

ভিডিও দেখে ও ওই স্বামীর স্বী‌কারোক্তির উপর ভিত্তি করে ওই ব্যক্তিকে পুলিশি হেফাজতে নিয়ে হাসপাতালেই রাখা হয়েছে। করোনা থেকে সুস্থ্য হবার পর তাকে আদালতে তোলা হবে।