কুমিল্লায় সর্বোচ্চ ৩২ জনের করোনা শনাক্ত একদিনেই



কুমিল্লা জেলায় বুধবার একদিনে সর্বোচ্চ ৩২ জনের শরীরে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) শনাক্ত হয়েছে। ওই দিন দুপুর পর্যন্ত ১২ জন এবং রাত সাড়ে নয়টায় আরও ২০ জন করোনায় শনাক্ত হন। শনাক্তদের ১৯ জন দেবীদ্বার, ১০ জন মুরাদনগর, দুজন নাঙ্গলকোট ও একজন চান্দিনা উপজেলার বাসিন্দা।

এ নিয়ে পুরো জেলার ১৭টি উপজেলার সব কটিতে মোট ১৯১ জন রোগী শনাক্ত হলেন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৩৯ জন ও মারা গেছেন নয়জন। মারা যাওয়াদের মধ্যে সাতজন দেবীদ্বার, একজন চান্দিনা ও একজন মুরাদনগর উপজেলার বাসিন্দা।


জেলা ডেপুটি সিভিল সার্জন মো. সাহাদাত হোসেন জানান, বুধবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত মুরাদনগর উপজেলায় ১০ জনের করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে নবীপুর পশ্চিম ইউনিয়নের উত্তর ত্রিশ গ্রামের ৬০ বছরের নারী, ৫৭ বছরের পুরুষ এবং ৩৮, ৩০ ও ২৬ বছরের তিনজন পুরুষ রয়েছেন। রহিমপুর গ্রামের ৩৭ বছরের পুরুষ একজন, মুরাদনগর মোহনা আবাসিক এলাকার ২৯ বছরের এক মহিলা, সুরানন্দি গ্রামের ৩১ বছরের এক পুরুষ ও ২৯ বছরের এক নারী এবং নগরকান্দি গ্রামের ৩২ বছরের একজন পুরুষ আছেন। এর মধ্যে নগরকান্দি গ্রামের ওই ব্যক্তি গত ১১ মে মারা যান। অন্য দুজন হলো নাঙ্গলকোট উপজেলার ১৬ বছরের এক কিশোরী ও ১২ বছরের এক কিশোর।