সামাজিক দূরত্ব মেনে নামাজ পড়তে বলায় মুসল্লির মাথা ফাটাল ‘বখাটেরা’

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে মসজিদে নামাজ আদায় করতে বলায় মো. ফারুক চৌকিদার (৪৮) নামের এক মুসল্লির মাথা ফাটিয়ে দিয়েছেন স্থানীয় কয়েকজন ‘বখাটে’।



গত শুক্রবার জুমার নামাজের পর মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলায় এ ঘটনা ঘটে। এ হামলার ঘটনায় আজ রোববার সকালে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

স্থানীয় কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, উপজেলার সাহেবরামপুর এলাকার আন্ডারচর গ্রামের ফারুক চৌকিদার ওই এলাকার চৌকিদার বাড়ি জামে মসজিদে শুক্রবার আসর ওয়াক্তের নামাজ পড়তে যান। এ সময় তিনি মসজিদের সব মুসল্লিদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে নামাজ আদায় করার জন্য বলেন। এ নিয়ে নামাজ শেষে ফারুক চৌকিদারের সঙ্গে একই এলাকার মোফাজ্জেল চৌকিদারের বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে মোফাজ্জেলের নেতৃত্বে রুদ্র, অভি, শান্ত ও বিপ্লবসহ বেশ কয়েকজন যুবক মিলে ফারুক হাওলাদারকে পিটিয়ে তার মাথা ফাটিয়ে দেন।


পরে স্থানীয় লোকজন তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে কালকিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

আহত ফারুক হাওলাদার বলেন, ‘আমি সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে নামাজ পড়তে বলায় আমাকে মোফাজ্জেলসহ বেশ কয়েকজন মিলে মারধর করেছে।’

তবে এ বিষয় জানতে চাইলে অভিযুক্ত মোফাজ্জেল চৌকিদার মারধরের বিষয়টি অস্বীকার করেন।

এ বিষয়ে কালকিনি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আল ইমরান বলেন, ‘অভিযোগ পেয়েছি। তবে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’