করোনা রোগী পালানোর চেষ্টা করলেই গুলি!

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী হাসপাতাল বা আইসোলেশন সেন্টার থেকে পালানোর চেষ্টা করলেই তাকে গুলি করে হত্যার অনুমতি দিয়েছে নেপালের একটি জেলার স্থানীয় সরকার।



গতকাল শুক্রবার দেশটির ইংরেজি দৈনিক দ্য হিমালয়ানের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, নেপালের পারসা জেলা ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট সেন্টার আইসোলেশন ওয়ার্ড থেকে কোনো করোনা পজিটিভ রোগী পালানোর চেষ্টা করলে তাকে গুলি করে হত্যা করতে নিরাপত্তাবাহিনীকে অনুমতি দিয়েছে।

পারসার পুলিশ সুপার গঙ্গা পান্তা জানিয়েছেন, বুধবার জেলার ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট সেন্টারের একটি বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, নিরাপত্তা কর্মীরা প্রয়োজনে প্রাণঘাতী শক্তি ব্যবহার করতে পারবে।

এর আগে বুধবার নারায়ণী উপ-আঞ্চলিক হাসপাতাল থেকে দুজন কোভিড-১৯ রোগী পালিয়েছিল। যদিও পুলিশ ওই দিনই তাদের আটক করে।


এরই পরিপ্রেক্ষিতে কোনো করোনা রোগী পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে নিরাপত্তাকর্মীরা শক্তি প্রয়োগ করতে পারবে, এমনকি তাদের প্রতিরোধে গুলি করারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পারসা জেলার প্রধান কর্মকর্তা বিষ্ণু কুমার কারকি নিরাপত্তা বাহিনীর কর্মকর্তাদের এ নির্দেশনা দেন।

এদিকে পারসা জেলা প্রধানের এমন সিদ্ধান্ত নিয়ে দেশটির সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় বইছে। বিষয়টিকে মৌলিক মানবাধিকারের লঙ্ঘন বলে মত দিচ্ছেন কেউ কেউ।

নিরাপত্তা বাহিনীকে এমন অনুমতি দেয়াকে বিপজ্জনক উল্লেখ করেছে দেশটির মানবাধিকার কর্মীরা।

পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারে তথ্য অনুযায়ী, নেপালে এখন পর্যন্ত মাত্র ২৬৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু সংখ্যা শূন্যের কোঠায়। ইতিমধ্যে চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়েছেন ৩৬ জন।