মরিনি এখনো: এটিএম শামসুজ্জামান

‘আমি মরিনি এখনো। এর আগেও অনেক বার আমার মৃত্যুর গুজব ছড়িয়েছে। মানুষ কেন যে এরকম করে বুঝি না। আমার সঙ্গে তাদের কিসের শত্রুতা? আল্লাহ এ সমস্ত মানুষদের হেদায়েত দান করুন।’ নিজের মৃত্যুর গুজব ছড়িয়ে পড়া প্রসঙ্গে এভাবেই প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন বাংলা চলচ্চিত্রের প্রবীণ ও বরেণ্য অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান।



গতকাল সন্ধ্যায় হঠাৎই ফেইসবুকে ছড়িয়ে পড়ে, খ্যাতিমান এই অভিনেতা মারা গেছেন। অনেকে তার রুহের মাগফেরাতের জন্য দোয়াও চান। এমন খবর কানে যাওয়া মাত্রই বরাবরের মতো এবারও এটিএম শামসুজ্জামানকে জানাতে হলো, তিনি সুস্থ আছেন। স্বাভাবিক ভাবে খাওয়াদাওয়া করছেন। বর্তমানে রাজধানীর সূত্রাপুরের বাসায় আছেন।


এদিকে স্বামীর মৃত্যুর গুজব ছড়ার খবরে ক্ষোভ প্রকাশ করে এটিএম শামসুজ্জামানের স্ত্রী রুনি জামান বলেন, ‘সন্ধ্যার পর হঠাৎই চারদিক থেকে ফোন আসা শুরু হয়। সবাই জানতে চান, এটিএম শামসুজ্জামান সাহেব কখন মারা গেছেন? আমরা তো রীতিমতো অবাক! তাদের কী উত্তর দেব বুঝতে পারছিলাম না। দেশের এই দুর্যোগের সময়ে একটা জলজ্যান্ত মানুষকে এভাবে মেরে ফেলতে পারে!’


এর আগেও বেশ কয়েকবার সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে এটিএম শামসুজ্জামানের মৃত্যুর গুজব ছড়িয়ে পড়ে। প্রতিবারই অভিনেতা নিজে ফেইসবুক লাইভে এসে জানান যে, তিনি মরেননি, সুস্থ আছেন। গত বছরের এপ্রিলে হজমজনিত সমস্যার কারণে তিনি রাজধানী গেন্ডারিয়ার আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। সেবারও তার মৃত্যুর খবর রটেছিল।


কিন্তু সব খবরকে মিথ্যা প্রমাণ করে আজগর আলী হাসপাতালে টানা ৫০ দিন এবং পরবর্তীতে শাহবাগের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়িতে ফেরেন এটিএম শামসুজ্জামান। সেই থেকে তিনি সূত্রাপুরের বাড়িতে রয়েছেন। স্ত্রীর দেয়া তথ্য মতে, সেখানে অভিনেতা সুস্থ আছেন, ভালো আছেন।