স্ত্রী-কে ধর্ষণের পর প্রবাসী স্বামীর কাছে ধর্ষণের ভিডিও পাঠালো বরিশালের যুবক

প্রবাসীর স্ত্রী-কে ধর্ষণের ভিডিও করে বিষয়টি কাউকে জানালে সেই ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেয়ার পর ওই ভিডিও ধর্ষিতার স্বামীর কাছে পাঠানোর ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। ধর্ষক রাকিব সরদারকে প্রধান আসামি করে মামলায় আরো ২/৩ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে।



ঘটনাটি বরিশাল জেলার গৌরনদী উপজেলার পূর্ব বেজহার গ্রামের।

সকালে মডেল থানার ওসি এজাহারের বরাত দিয়ে জানান, ওই গ্রামের শাহিন সরদারের বখাটে পুত্র রাকিব সরদার (১৯) দীর্ঘদিন থেকে প্রতিবেশী মজিদ সরদারের বাড়ির ভাড়াটিয়া এক সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী কলেজছাত্রীকে (১৯) বিভিন্ন ধরনের কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিলো। তার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় গত ৩০ এপ্রিল সকালে বখাটে রাকিব প্রবাসীর স্ত্রীর ঘরে প্রবেশ করে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

দেখে নিন ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে যাওয়া সেই ভিডিওটি

এসময় অজ্ঞাতনামা তার (ধর্ষক রাকিব) সহযোগিরা ধর্ষণের চিত্র মোবাইল ফোনে ধারণ করে। পরবর্তীতে ধর্ষণের বিষয়টি কাউকে জানালে ধর্ষক রাকিব আপত্তিকর ছবি ও ভিডিওগুলো ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেয়।

দেখে নিন ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে যাওয়া সেই ভিডিওটি

মামলার বাদি সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী জানান, ওই ছবির ভয় দেখিয়ে তাকে পুনরায় ধর্ষণের চেষ্টা চালায় বখাটে রাকিব। এসময় বিষয়টি রাকিবের বাবা-মাকে জানানোর পর তারা কোনো কর্ণপাত না করে উল্টো তাকে শাসিয়ে দেয়। অভিভাবকদের জানানোর ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয় বখাটে রাকিব সরদার।

দেখে নিন ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে যাওয়া সেই ভিডিওটি

এজাহারে আরো উল্লেখ করা হয়েছে, ধর্ষক রাকিব সরদার ওই আপত্তিকর একাধিক ছবি ও ভিডিও তার প্রবাসী স্বামীর ইমো নাম্বারে পাঠিয়েছে। ফলে তার সুখের সংসার ভাঙ্গার উপক্রম হয়েছে।

উপায়ান্তুর না পেয়ে তিনি ধর্ষক রাকিব সরদারসহ অজ্ঞাতনামা আরও ২/৩ জনকে আসামি করে গৌরনদী মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে এবং পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করেছেন।