"কৈশোরে সঞ্জয় দত্ত সমকামী ছিলো", বললেন তার মা ও বোন !

বলিউডের অন্যতম তারকাখচিত পরিবার দত্ত পরিবার। যেখানে ভারতের সাবেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও অভিনেতা সুনীল দত্তের মতো মানুষ আছেন, অভিনেত্রী নার্গিস আছেন সেই পরিবার নিশ্চয়ই নামকরা। বলিউডের বহুল আলোচিত চরিত্র সঞ্জয় দত্ত অভিনেত্রী নার্গিস ও অভিনেতা সুনীল দত্তের ছেলে। এবার তার সম্পর্কে একটি বইতে বেশ কিছু তথ্য উঠে এসেছে। ইয়াসের ওসমানের লেখা বই 'দ্য ক্রেজি আনটোল্ড স্টোরি অব বলিউডস ব্যাড বয়' তে সঞ্জয়কে নিয়ে বেশ কিছু ঘটনা জানিয়েছেন সঞ্জয়ের বোন নম্রতা।



নম্রতা জানান, তাদের মা নার্গিস ছোট থেকেই কড়া শাসনে রাখতেন সঞ্জয়কে। যতটা ভালোবাসতেন ততটাই রাগ দেখাতেন নার্গিস। তবে ছেলে যে ড্রাগের নেশায় ভুগছেন, তা মেনে নিতে পারেননি নার্গিস। অভিনেত্রী ছেলে সঞ্জয়ের স্নেহে অন্ধ ছিলেন। কিছুতেই মানতে পারেননি যে ছেলে মদ ও ড্রাগে নেশাগ্রস্ত।


এরপর সঞ্জয়ের বোন প্রিয়া দত্ত এই বইতে একটি জায়গায় সঞ্জয়ের ছোটবেলার এক গল্প শেয়ার করেন। তিনি বলেন, একটা সময় সঞ্জয় বাড়িতে পুরুষ বন্ধুদের সঙ্গে ঘরে ঢুকে দরজা বন্ধ করে রাখত। যা দেখে ছেলেকে সমকামী ভেবেছিলেন মা। পরে অবশ্য সেই ভুল ভাঙে।


সঞ্জয়ের পুরো নাম সঞ্জয় বলরাজ দত্ত। ১৯৮১ সালে 'রকি' চলচ্চিত্রে অভিষেকের পর তিনি ১৮০'র অধিক হিন্দি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। সঞ্জয় দত্ত প্রণয়ধর্মী থেকে শুরু করে হাস্যরসাত্মক চলচ্চিত্রে শ্রেষ্ঠাংশে অভিনয় করে সফলতা অর্জন করেছেন। নাট্যধর্মী ও মারপিটধর্মী চলচ্চিত্রে গ্যাংস্টার, গুণ্ডা ও পুলিশ অফিসার চরিত্রে অভিনয় করেও তিনি বেশ সমাদৃত হয়েছেন।


এইসব চরিত্রে তার কাজের জন্য ভারতীয় গণমাধ্যম ও দর্শক তাকে 'ডেডলি দত্ত' বলে অভিহিত করে। তার অভিনীত চলচ্চিত্রসমূহের মধ্যে খলনায়ক (১৯৯৩), বাস্তব (১৯৯৯), মুন্না ভাই এম.বি.বি.এস. (২০০৩) অন্যতম।