ঘরে তৈরি হ্যান্ড স্যানিটাইজার কতটা ‍কাজে দেয়? নিয়ম সহ জেনে নিন


করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে সাবান ও হ্যান্ড ওয়াশের পাশাপাশি হ্যান্ড স্যানিটাইজারও ব্যবহার করতে বলা হচ্ছে। সম্প্রতি ঘরে বসে কিভাবে এই জীবাণুনাশক হ্যান্ড স্যানিটাইজার বানানো যায়, তা নিয়ে ফেসবুক ইউটিউবে একের পর এক তথ্য ও পরামর্শ দিচ্ছেন অনেকেই।


তবে ঘরে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করা গেলেও এর মিশ্রণের তারতম্যে হতে পারে মানের ঘাটতি। আর তাতে জীবাণু ধ্বংস করার ক্ষমতা যাবে কমে। ঘরে তৈরি হ্যান্ড স্যানেটাইজারে প্রয়োজনীয় মাত্রায় অ্যালকোহল ব্যবহারে ভুল হতে পারে। এমনকি উপাদানগুলো মেশানোর সময় তাতে দূষণও ঘটতে পারে।


এই রাসায়নিক উৎপাদনের যে পরিশুদ্ধ ব্যবস্থা দরকার, ঘরে তা থাকে না। আর নিজে বানাতে গেলে অ্যালকোহলের অনুপাত ভুল হওয়ার আশঙ্কা থেকে যায়। তাই এই স্যানিটাইজারেই হয় তো ব্যাকটেরিয়া, ছত্রাক ও ভাইরাস মিশে যাবে। অনেকেই এই স্যানিটাইজার ব্যবহারে সুগন্ধি ও তেল মেশাচ্ছেন। যার ফলে ত্বকে অ্যালার্জির সমস্যাও দেখা দিতে পারে।


তাই সাবান আর পানি দিয়েই হাত ধোয়া সবচেয়ে ভালো। ধোয়ার পর ত্বকে কোনো ক্রিম-লোশন মেখে নিন। হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি যে তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘুরছে, তা তুলে ধরে এর কার্যকারিতায় ঘাটতি থে