মসজিদে নামাজ পড়া নিয়ে সংঘর্ষে আহত ২০

মাদারীপুরের শিবচর উপজেলায় মসজিদে নামাজ পড়া নিয়ে সংঘর্ষে ২০ জন আহত হয়েছেন।



রোববার সন্ধ্যায় উপজেলার নিলখী ইউনিয়নের দক্ষিণ চরকামারকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আহতদের উদ্ধার করে শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা যায়, রোববার সন্ধ্যায় মাদবরবাড়ির লোকজন মসজিদে মাগরিবের নামাজ পড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। নবনির্মিত ওই মসজিদ কমিটি নিয়ে পাশের বাড়ির ফকির বংশের লোকদের সঙ্গে তাদের আগে থেকে বিরোধ চলছিল।


করোনাভাইরাস আতঙ্কে তারাবি নামাজের জন্য সরকারের নির্ধারিত মুসল্লি নিয়ে ওই মসজিদে নামাজের ব্যবস্থা করা হলে পাশের বাড়ির প্রতিপক্ষের লোকজন চরম আপত্তি করে। সেই সূত্র ধরেই অপর পক্ষের লোকজন সন্ধ্যায় অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় সংঘর্ষে সিদ্দিক মাস্টার, হজরত মাদবর, মোসলেম মাদবর, মোকসেদ মাদবর, বিল্লাল মাদবরসহ প্রায় ২০ জন আহত হন।

শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. রাকিবুল ইসলাম বলেন, ইতিমধ্যে আহত আটজন এখানে ভর্তি হয়েছে। ৪-৫ জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

এ ছাড়া শরিফুল নামে গুরুতর আহত একজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

এ ঘটনায় শিবচর থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ বলেন, মাগরিবের নামাজের সময় ঘটনা শুনে আমি পুলিশ পাঠাই। এখন এলাকা শান্ত রয়েছে।

তবে এখনও কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। নামাজ পড়ার ঘটনা কেন্দ্র করে এ সংঘর্ষের সূত্রপাত বলে প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি।