Sponsored

প্রয়োজনে বলপ্রয়োগ করে প্রবাসীদের কোয়ারেন্টিনে রাখবে সেনাবাহিনী

দেশে দ্রুতই ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস। করোনা আক্রান্ত ইতালি, চীনসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে কয়েক লাখ প্রবাসী দেশে এসেছেন। 



দেশে আসা প্রবাসীদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে কিংবা হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার কথা থাকলেও অধিকাংশই তা মানছেন না। কেউ কেউ শ্বশুরবাড়ি ঘুরে বেড়াচ্ছে, কেউ করছেন বিয়ে। আর্থিক জরিমানা করেও কোয়ারেন্টিনে রাখা যাচ্ছে না তাদের। এবার প্রবাসীদের কোয়ারেন্টিনে থাকতে বাধ্য করবে সেনাবাহিনী।


একটি বেসরকারি টেলিভিশনে দেওয়া সাক্ষাৎকার বিষয়টি জানিয়েছেন আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) পরিচালক লেফট্যানেন্ট কর্নেল আবদুল্লাহ ইবনে জায়েদ।


তিনি জানান, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সামাজিক দূরত্ব ও সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণে আজ মঙ্গলবার থেকে মাঠে থাকছে সেনাবাহিনী। তবে গুরুত্বপূর্ণ এই কাজে তাদের সঙ্গে নৌবাহিনী ও বিমানবাহিনীও অংশগ্রহণ করবে।


আইএসপিআর পরিচালক বলেন, ‘পরম আস্থা থেকে সেনাবাহিনীকে যে দায়িত্বটা দেওয়া হয়েছে, সেই দায়িত্ব পালনে সেনাবাহিনীর মূল লক্ষ্য থাকবে, প্রথমে যে বিদেশ থেকে প্রত্যাবর্তন করেছেন, সেই নাগরিকগুলোকে তাদের স্ব স্ব অবস্থানে নির্ণয় করে তারা কোয়ারেন্টিনে আছে কিনা সেটা নিশ্চিত করব। এটা মূল কাজ।’


সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, বিভাগীয় ও জেলা শহরগুলোয় সামাজিক দূরত্ব এবং সতর্কতামূলক ব্যবস্থার জন্য বেসরকারি প্রশাসনকে সহায়তা দিতে সেনাবাহিনী নিয়োজিত হবে। বিভাগীয় ও জেলা শহরগুলোয় সামাজিক দূরত্ব ও সতর্কতামূলক ব্যবস্থার জন্য বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তা দিতে সশস্ত্র বাহিনী নিয়োজিত হবে।