Sponsored

টাকার মাধ্যমেই সবচেয়ে দ্রুত ছড়াচ্ছে করোনাভাইরাস !

 টাকা এমন এক মাধ্যম, যা এক হাত থেকে অন্য হাতে সবচেয়ে বেশি ঘুরে বেড়ায়। প্রতিদিেই কোনো না কোনোভাবে ‍‍‌আপনি টাকা লেনদেন করছেন। করোনা আতংকে হয়ত আপনি নিয়মিত হাত ঠিকই ধুচ্ছেন, তবে টাকা ধরার পর জীবাণু কিন্তু ঠিকই আপনার হাতে চলে আসছে।



আমরা জানি অর্থ সর্বদা হাত বদল হয়। তবে জানেন কি, যাবতীয় ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়ার আস্তানা হলো টাকা ! বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডাব্লিউএইচও) মুখপাত্র ফাদেলা ছাইব জানিয়েছেন, প্রতিবার টাকা ধরার পর অবশ্যই হাত ধুতে হবে এবং মুখ স্পর্শ করা যাবে না। বর্তমান পরিস্থিতি অনুযায়ী, হাতে লেনদেন নয় বরং মোবাইল ব্যাংকিং বা কার্ডের মাধ্যমে অর্থ বিনিময় করা উত্তম।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা WHO থেকে নগদ লেনদেনের বিষয়টি এড়িয়ে যেতে বলা হয়েছে। এতে করে করোনার ঝুঁকি অনেকাংশেই বেড়ে যেতে পারে। ডাব্লুএইচওর মুখপাত্র  আরো বলেন, কোভিড-১৯ টাকার মাধ্যমেও অতি সহজে মানুষের হাতে প্রবেশ করতে পারে। এক্ষেত্রে যেহেতু আপনি ভাইরাসটির উপস্থিতি টের পাবেন না তাই আরো সতর্ক হওয়া উচিত।

সম্প্রতি, দক্ষিণ কোরিয়ার কেন্দ্রীয় ব্যাংকও ঘোষণা করেছে যে করোনাভাইরাসের বিস্তারকে সীমাবদ্ধ করতে অন্তত দুই সপ্তাহের জন্য নগদ লেনদেন বন্ধ থাকবে। জানা গেছে, চীনের উহানে যখন করোনা ছড়িয়ে পড়ে তখন সেখানকার পিপলস ব্যাংক অব চীন গত ফেব্রুয়ারি মাসেই হাসপাতাল, বাজারসহ বিভিন্ন স্থান থেকে সমস্ত অর্থ সংগ্রহ করে পুড়িয়ে দেয়।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ডব্লিউ ইউচ ও এর ধারণা, নগদ লেনদেনের কারণেই করোনাভাইরাসটি বিশ্বের নানা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। চীনের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনা নামক মরণব্যাধিতে বর্তমানে বিশ্বব্যাপী মৃতের সংখ্যা ১৩ হাজার ৬৯ জন এবং আক্রান্ত অন্তত তিন কোটি আট হাজার ৪৬৩ জন।