Sponsored

জনশূন্য রাজধানীতে ঝিঁঝিঁ'র ডাক

লালবাগ কেল্লার পাশ হয়ে আজিমপুর এতিমখানা। তিন মিনিট হাঁটলেই আজিমপুর বাস স্ট্যান্ড। যাত্রী ছাউনিতে দাঁড়াতেই ভেসে আসলো ঝিঁঝিঁ পোকার ডাক। অসহ্য গাড়ির হর্ন আর কোটি মানুষের শহরে এমনটা অপ্রত্যাশিত হলেও ভালো লাগার মতো। বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের ভয়াল থাবায় পৃথিবীর তিনভাগের দুই ভাগ মানুষ এখন গৃহবন্দি। সবার মধ্যে আতঙ্ক। রাজধানীও তার ব্যতিক্রম নয়। দুদিনে বদলে গেছে মহানগরীর চিত্র। যে শহরে স্রোতের মতো মানুষের চলাচল থাকে ফুটপাতে, সে ফুটপাত এখন জনশূন্য। যে শহরে ঘর থেকে বের হয়ে কত সময় যানজটে থাকতে হবে থাকে সেই দুশ্চিন্তায়! সে সড়ক এখন ফাঁকা। করোনার ভয়াবহতা থেকে বাঁচতে দীর্ঘ ছুটির কারণে এমন দৃশ্য এখন রাজধানীর।



আজ শুক্রবার রাজধানী বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, সড়কগুলোতে কোনো গণপরিবহন নেই। যাত্রী ছাউনি ছিলো যাত্রীশূন্য। জরুরি গাড়ি ছাড়া কোনো গণপরিবহন চলছে না। আজিমপুর বাস স্ট্যান্ডেও নেই কোনো গাড়ি। তবে সড়কে সীমিত আকারে সিএনজি, ব্যাটারিচালিত অটো রিকশা, অ্যাম্বুলেন্স, পিকআপ, কাভার্ডভ্যান, প্রাইভেট কার চলছে।


আজিমপুর বাস স্ট্যান্ডে দায়িত্বরত এক ট্রাফিক পুলিশ বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে মানুষ ঘর থেকে বের হচ্ছে না। গত কয়েকদিন ধরে ক্রমস রাজধানীতে গাড়ির সংখ্যা কম ছিল। এখন এটার চূড়ান্ত পর্যায়। গাড়ি নেই বললেই চলে। গাড়ি কম তাই নিয়ন্ত্রণ করা লাগছে না।