Sponsored

পাবনায় দলবেঁধে ধর্ষণ করা হলো গৃহবধূকে

পাবনার সুজানগর উপজেলার চর সুজানগর ভবানিপুর এলাকায় এক গৃহবধূকে দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় ওই গৃহবধূ নিজেই বাদী হয়ে মামলা করেছেন। এই ঘটনায় সরদার সুমন হোসেন পটল (২২) নামে এক অভিযুক্তকে আটক করেছে পুলিশ।



আটক সুমন চরসুজানগর এলাকার মান্নান সরদারের ছেলে।

ঘটনায় আরেক অভিযুক্ত চর সুজানগর এলাকার সুজানগর পৌর ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুমন খানসহ আরো চারজন পলাতক রয়েছে। তাদের ধরতে পুলিশের অভিযান চলছে।


পাবনা সুজানগর থানার তদন্তকারী কর্মকর্তা হাদিউল ইসলাম জানান, গণধর্ষণের স্বীকার গৃহবধূ গত রবিবার সন্ধ্যায় সাঁথিয়া থেকে সুজানগর হয়ে কুলাদী বোনের বাড়িতে যাচ্ছিলেন। সুজানগর বাজার থেকে তার দুলাভাই তাকে নিতে আসেন। পথের মধ্যে ওই এলাকার চিহ্নিত বখাটেরা দলবদ্ধভাবে তাকে পথ রোধ করে। বখাটেরা গহবধূর দুলাভাইকে মারপিট করে তাকে ভয় দেখিয়ে মেয়েটিকে রাস্তার পাশে গম ক্ষেতে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে ভিকটিমের পরিবারের সদস্য ও ভিকটিম নিজে সুজানগর থানাতে পাঁচজনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা করেছেন।


ঘটনার পর অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত সরদার সুমন ওরফে পটল নামে একজনকে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ঘটনার বিষয়ে আমরা সত্যতা পেয়েছি।

গণধর্ষণের স্বীকার গৃহবধূকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পাবনা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনার সাথে অন্য যারা জড়িত রয়েছে, তাদের গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান চালানো হচ্ছে।