Sponsored

করোনা ঠেকাতে মাশরাফি-তামিমের দান ৩১ লাখ টাকা

মাত্র তিনমাসেই বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। বাংলাদেশেও জেঁকে বসেছে মরণ ভাইরাস কোভিড-১৯। ৩৯ জন আক্রান্তের মধ্যে ইতোমধ্যেই মারা গেছেন ৫ জন। দেশের এই দুঃসময়ে এগিয়ে এলেন জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। প্রধানমন্ত্রীর দুর্যোগ ব্যবস্থাপক তহবিলে দান করলেন ৩১ লাখ টাকা।



নিজেদের এক মাসের বেতনের অর্ধেক দান করে দিচ্ছেন ক্রিকেটাররা। সবমিলিয়ে মোট ২৭ জন খেলোয়াড় তাদের একমাসের বেতনের অর্ধেক টাকা দান করছেন। দানকৃত এ অঙ্কের পরিমাণ  ৩১ লাখ টাকা।


বাংলাদেশের ওয়ানডে দলের অধিনায়ক তামিম ইকবাল বলেন, ‘এটা জাতীয় দুর্যোগ। এ দুর্যোগ মোকাবেলা সরকারের কিংবা কারো একার দায়িত্ব নয়। এ দায়িত্ব আমাদের সবার। সেই চিন্তা থেকে আমরা ক্রিকেটাররা একটি পদক্ষেপ নিয়েছি। অধিনায়ক হিসেবে আমি ভীষণ গর্বিত যে এ উদ্যোগে দলের সবাই সমান আবেগ নিয়ে অংশগ্রহণ করেছে।’

তামিম জানান, ‘গতকাল মাশরাফি ভাইয়ের সঙ্গে আলাপ হচ্ছিল এটা নিয়ে। এরপর সবার সঙ্গে কথা হয়। সবাই এক বাক্যে রাজি হয়েছে।’


কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা ১৭ ক্রিকেটারসহ মোট ২৭ জন ক্রিকেটার নিজেদের এক মাসের বেতনের অর্ধেক দান করছেন সরকারী তহবিলে।

বিসিবির চুক্তিতে থাকা ১৭ ক্রিকেটার হলেন: তামিম ইকবাল, লিটন দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, তাইজুল ইসলাম, মেহেদী হাসান মিরাজ, মুমিনুল হক, নাঈম হাসান, আবু জায়েদ রাহি, ইবাদত হোসেন, মাহমুদউল্লাহ, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মোস্তাফিজুর রহমান, আফিফ হোসেন,মোহাম্মদ নাঈম শেখ।

এছাড়া জিম্বাবুয়ে সিরিজের স্কোয়াডে থাকা বাকি ১০ ক্রিকেটাররা হলেন, মাশরাফি বিন মর্তুজা, ইয়াসির আলি চৌধুরী, মেহেদী হাসান, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, শফিউল ইসলাম, আল-আমিন হোসেন, হাসান মাহমুদ, রুবেল হোসেন ও নাসুম আহমেদ, সাইফ হাসান।