Sponsored

বাংলাদেশি চা দোকানিকে সীমান্তে ডেকে নিয়ে হত্যা করল ভারতীয়রা

কুমিল্লা সীমান্তে পাওনা টাকা দাবি করায় আনোয়ার হোসেন নামে এক চা দোকানিকে পিটিয়ে হত্যা করেছে ভারতীয় মাদক কারবারি চক্র।




শনিবার বিকালে সীমান্তের ৭৮ নং পিলারের নিশ্চিন্তপুর এলাকা থেকে ওই চা দোকানিকে ধরে নিয়ে ভারতের অভ্যন্তরে ত্রিপুরা রাজ্যের সিপাহজলা জেলার সোনামুড়া উপজেলার ইউএনসি সীমান্ত এলাকায় পিটিয়ে হত্যা করা হয়।

নিহত আনোয়ার হোসেন (৪৫) জেলার আদর্শ সদর উপজেলার পাঁচথুবী ইউনিয়নের নিশ্চিন্তপুর গ্রামের সেতু মিয়ার ছেলে। এ সময় ঘাতকরা তার লাশ ফেলে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে সোনামুড়া থানা পুলিশ ওই চা দোকানির লাশ উদ্ধার করে।

৬০ বিজিবির সুলতানপুর ব্যাটালিয়ানের নায়েক সুবেদার তাজুল ইসলাম জানান, নিশ্চিন্তপুর এলাকার চা দোকানি আনোয়ার হোসেনের কাছ থেকে বাকেয়া চা-সিগারেট সেবন করে ভারতীয় এক ব্যক্তি। আনোয়ার হোসেন তার কাছে বকেয়া ৪৫০ টাকা দাবি করলে ভারতীয় ওই ব্যক্তি পাওনা টাকা না দিয়ে দোকানির ওপর চড়াও হয়।

পরে টাকা নিয়ে যাওয়ার জন্য আনোয়ারকে ডেকে কৌশলে ভারতের অভ্যন্তরে নিয়ে যাওয়া হয়। এ সময় কয়েকজন মিলে চা দোকানিকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে কোতোয়ালি মডেল থানার ছত্রখিল ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই শাহিন কাদির জানান, খবর পেয়ে আমি নিশ্চিন্তপুর এলাকায় গিয়ে ঘটনা সম্পর্কে অবগত হয়েছি। ঘটনাস্থল যেহেতু ভারতের অভ্যন্তরে তাই সেখানেই মামলা হবে। যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসারে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণসহ তার লাশ হস্তান্তর করবে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ।