Sponsored

‌শিশুদের ঝুঁকিতে ঠেলে দেয়ার অধিকার কে দিয়েছে এ সরকারকে? প্রশ্ন আসিফ নজরুলের

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। এরইমধ্যে করোনাভাইরাসকে মহামারী ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। বাংলাদেশেও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫জন। তাদের মধ্যে একজন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। বেশকিছু লোককে রাখা হয়েছে কোয়ারেন্টাইনে।



দেশে এ ভাইরাস সংক্রমিত হওয়ার পরও স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা না করায় সরকারের সমালোচনা করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল।


রোববার (১৫ মার্চ) সকালে নিজের ফেসবুক পেজে এ নিয়ে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি।

আসিফ নজরুল বলেন, সরকারের ভেতরে বা তার ধারেকাছে থাকার সুবাধে কোটিপতি হওয়া ব্যক্তিদের অনেকের সন্তান পড়ে বিদেশে বা দেশের বিদেশি মানের স্কুলগুলোতে। ফুল অটোগাড়ি, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্ক, স্কুলের পরিবেশ– সব মিলিয়ে তারা থাকে অনেক কম ঝুঁকিতে।

কিন্তু বাংলাদেশে আমজনতার বিপুলসংখ্যক সন্তান স্কুলে আসে গণপরিবহনে। স্কুলে থাকে না টয়লেট, হাত ধোয়ার পানি আর সাবানের সুব্যবস্থা।

স্কুলের সামনে ফেরি করা খাবার থাকে উন্মুক্ত ও নোংরা। ফলে এদের করোনায় সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকি অনেক বেশি।

তিনি বলেন, সরকারের এসব না জানার কথা নয়। প্রশ্ন হচ্ছে– তা হলে এতকিছুর পরও কেন স্কুল বন্ধ দেয়া হচ্ছে না? আমাদের শিশুদের এবং তাদের পরিবারগুলোকে এমন ঝুঁকির মুখে ঠেলে দেয়ার অধিকার কে দিয়েছে এ সরকারকে?
তিনি আরও বলেন, কেউ কেউ কিন্তু এর সঙ্গে ১৭ মার্চ পালনের কোনো সম্পর্ক আছে কিনা এ নিয়ে সন্দেহ করছে। যদি সত্যি তা হয়, তা হলে এটি হবে বঙ্গবন্ধুরই জীবনাদর্শনের চূড়ান্ত অবমাননা।