ক্রীড়াঙ্গনেও যাতায়াত ছিল পাপিয়ার

সাংসদ, মন্ত্রী কিংবা তারকা- কার সঙ্গে ফ্রেমবন্দি হননি পাপিয়া? তার যে অবাধ যাতায়াত ছিল সকল মহলে তা ইতোমধ্যে সহজেই অনুমেয়। এই যখিন অবস্থা তখন জানা গেল নারী ও মাদক নিয়ে 'খেলা' করা পাপিয়া বাদ দেননি ক্রীড়াঙ্গনও।



ইতোমধ্যে সাবেক ফুটবলার আরিফ খান জয় এবং বাংলাদেশ টেস্ট ক্রিকেটের প্রথম অধিনায়ক নাইমুর রহমান দুর্জয়ের সঙ্গে তোলা তার কয়েকটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। তাতে শুরু হওয়া বিতর্কে সমালোচনার তীর এখন পাপিয়ার দিকে।


তবে আরিফ খান জয় এবং নাইমুর রহমান দুর্জয়ের ভক্তরা তাদের নিয়ে কিছু বলছেন না। কেননা সমালোচকরাও এরিমধ্যে বুঝে ফেলেছেন এই নাটকের আসল চরিত্র কে!

প্রসঙ্গত, মাদক-অস্ত্র চোরাচালান, জমি দখল করিয়ে দেওয়া, হোটেলে নারীদের দিয়ে যৌন বাণিজ্য থেকে মোটা অঙ্কের অর্থ উপার্জনের অভিযোগে গত শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) পাপিয়াকে গ্রেপ্তার এখন সারা দেশে আলোচিত ঘটনা। নরসিংদী জেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন তিনি। গ্রেপ্তারের পর পাপিয়াকে এই সংগঠন থেকেও বহিষ্কার করা হয়।

এরপর মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) পাপিয়ার বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের মুখে পড়েন সড়ক পরিবহনমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশের পরই বিতর্কিত যুব মহিলা লীগ নেত্রী শামীমা নূর পাপিয়াকে গ্রেফতার করে র‌্যাব।