Sponsored

খুন করে লাশের সঙ্গে যৌনসঙ্গম

নৃশংসতাকেও হার মানিয়েছে ভারতের দক্ষিণ দিল্লির একটি ঘটনা। খুন করে মৃতদেহের সঙ্গেই যৌনসঙ্গম করলেন দুই খুনী। যদিও খুন হওয়া ব্যক্তি ও দুই খুনী সমলিঙ্গের! সামাজিক মাধ্যমে ঘটনাটি আসার পর শুরু হয় তোলপাড়। নিহত ব্যক্তির বোনের অভিযোগের পর পাটনা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে দুই অভিযুক্তকে। খবর এনডিটিভির।



স্থানীয় প্রশাসন জানায়,  অভিযুক্ত দু'জন ঝাড়খণ্ড ও বিহারের বাসিন্দা। ঘটনার পর পুলিশের হাত থেকে রেহাই পেতে তারা পাটনায় পালিয়ে যায়। পাটনা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।


নিহত ব্যক্তির বোনের দাবি, সম্প্রতি তিনি বাইরে থেকে বাড়ি ফিরে দেখতে পান তার ভাইয়ের অচেতন দেহ নিয়ে পালানোর চেষ্টা করছে ওই দুই যুবক। তিনি বাধা দিতে গেলে সঙ্গে সঙ্গে তারা পালিয়ে যান। এরপর ভাইয়ের নিথর দেহের কাছে গিয়ে দেখেন যে, তাকে খুন করা হয়েছে। দ্রুত থানায় গিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন তিনি।

পাটনার ডেপুটি কমিশনার অতুল কুমার ঠাকুর জানান, ঘটনার পর দিল্লি পুলিশ যোগাযোগ করে বিহারের পুলিশের সঙ্গে। তারা পাটনা রেলস্টেশন থেকে গ্রেপ্তার করে অভিযুক্ত দু'জনকে। পরে পুলিশি জেরায় আসল ঘটনা বের হয়ে আসে।

অভিযুক্ত দু'জন পুলিশকে জানান, হোলির দিন একসঙ্গে মদ্যপান করছিলেন তারা তিন জন। নেশার ঘোরে তর্ক লেগে যায়। এক পর্যায়ে দু'জন মিলে অপর জনকে খুন করেন। এরপর মৃতদেহের সঙ্গে যৌনসঙ্গম করে লাশ ফেলে যান তারা। পরের দিন মৃতদেহ সরিয়ে ফেলার জন্য আসেন। তখনই নিহত ব্যক্তির বোনের হাতে ধরা পড়ে যান।