Sponsored

‘কুপ্রস্তাবে’ রাজি না হওয়ায় স্ত্রীর মাথা ন্যাড়া করলেন স্বামী

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে ‘কুপ্রস্তাবে’ রাজি না হওয়ায় স্ত্রীর মাথা ন্যাড়া করে দিয়েছেন স্বামী আমিরুল ইসলাম (৪৭)।

শনিবার বিকেলে উপজেলার মিস্ত্রীপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। অভিযুক্ত আমিরুল ইসলামের বাড়ি কুষ্টিয়া জেলায়। আমিরুলের স্ত্রী রোজিনা বেগম (৩৮) ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর থানার কাঞ্চনপুর গ্রামের সোরাপ আলী মন্ডলের মেয়ে।



ভুক্তভোগী রোজিনা অভিযোগ জানান,  অন্য পুরুষের সঙ্গে যাওয়ার জন্য প্রস্তাব দেন আমিরুল। এই প্রস্তাবে রাজি না হলে তিনি শারীরিক নির্যাতন চালান। নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে শনিবার বালিয়াডাঙ্গীতে ননদের বাড়িতে বিচার দিতে যান রোজিনা। সেখান থেকে আমিরুল জোর করে তাকে বাড়িতে নিয়ে যান। এরপর বারান্দায় পিলারের সঙ্গে বেঁধে রোজিনার মাথা ন্যাড়া করে দেন আমিরুল।


রোজিনা বলেন, স্থানীয়রা পুলিশে খবর দিলে আমিরুল বাড়ি থেকে পালিয়ে যান। আমিরুলের বিচার এলাকার কেউ করতে চায় না। একবার স্থানীয় চেয়ারম্যানকে বিচার দিয়েছিলাম কোনো কাজ হয়নি। আমি তিন সন্তানকে নিয়ে ননদের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছি। আমার সঙ্গে যা ঘটেছে তার বিচার চাই।

আমিরুলের ভাগনে মিজানুর রহমান বলেন, মামা মামীর ওপর প্রায় নির্যাতন চালান। আমরা নিষেধ করলে মানেন না। এ ঘটনায় তার বিচার হওয়া খুব জরুরি।

ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান বলেন, ৯৯৯ নম্বরে খবর পাওয়ার পরে পুলিশ ভিকটিমকে উদ্ধার করেছে সে এখন আমিরুলের বোনের বাড়িতে অবস্থান করছে। অভিযুক্ত স্বামী পলাতক রয়েছেন। অভিযোগের ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।