Sponsored

আবির যখন ডুবে যাচ্ছিল বন্ধুরা তখন সেলফি তোলায় মগ্ন

শিক্ষাসফরে গিয়ে মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে যশোর ক্যান্টনমেন্ট কলেজের ছাত্র আহসান আবিরের। পানিতে আবির যখন হাবুডুবু খাচ্ছিলেন তখন তার আশেপাশেই ছিলেন বন্ধুরা। চাইলেই হাত বাড়িয়ে তাকে বাঁচানো যেত। কিন্তু সেসময় সবাই ব্যস্ত ছিলেন সেলফি তুলতে। আর সেই সেলফিতেই ধরা পড়ে আহসান আবিরের ডুবে যাওয়ার করুণ দৃশ্য।



গত সোমবার বিকেলে কুষ্টিয়ার শিলাইদহে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতি বিজড়িত কুঠিবাড়ী সংলগ্ন পদ্মা নদীতে মর্মান্তিক এ ঘটনা ঘটে।


একাদশ শ্রেণির ছাত্র আবিরের গ্রামের বাড়ি ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার সাবদালপুর গ্রামে। তার সহপাঠী পলাশ আহমেদ বলেন, সবাই যখন পানিতে মজা করছিলাম, তখনই হঠাৎ পানিতে ডুবে যায় আবির। সেসময় যে সেলফি তোলা হয় সেটি দেখে বোঝা যায় আমরা যখন সেলফি তুলছিলাম বন্ধু আবির তখন ডুবে যাচ্ছিল।
যশোর ক্যান্টনমেন্ট কলেজের সহকারী অধ্যাপক তবিবুর রহমান জানান, সোমবার সকালে কলেজ থেকে ১৩১ জন শিক্ষার্থী ও ৯ জন শিক্ষক শিক্ষাসফরে শিলাইদহে রবীন্দ্র কুঠিবাড়িতে যান। কয়েকজন নিষেধ অমান্য করে পদ্মা নদীতে চলে যায়। দুপুর দেড়টার দিকে ১৯ জন শিক্ষার্থী সেখানে গোসল করতে পানিতে নেমেছিল। কিছুক্ষণের মধ্যেই আবির পানিতে ডুবে যায়।