Sponsored

মাটির ওপর কতক্ষণ বেঁচে থাকে করোনাভাইরাস!

চীনসহ সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে প্রাণহানির সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এখন পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী মৃত্যুর সংখ্যা ৫ হাজার ৮৩৯ জনে পৌঁছেছে। আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছেছে ১ লাখ ৫৬ হাজার ৫৫৮ জনে। এই ভাইরাসের ভয়ানক সংক্রামক প্রকৃতির কারণে আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে। সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন অনুসারে, এই ভাইরাস সারাবিশ্বে শতাধিক স্থানে শনাক্ত করা হয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা-হু ইতিমধ্যে নোভেল করোনাভাইরাসকে মহামারী হিসেবে ঘোষণা করেছে।



করোনাভাইরাসটি বাতাসের মাধ্যমে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। যদি সংক্রামিত ব্যক্তি কোনো জিনিসে স্পর্শ করে বা তার সংস্পর্শে কোনো সুস্থ ব্যক্তি এলেও এটি ছড়িয়ে পড়ে। গবেষণায় দেখা গেছে যে, ভাইরাসটিকে তামার ওপর চার ঘণ্টা অবধি, কার্ডবোর্ডে ২৪ ঘণ্টা এবং প্লাস্টিক ও স্টেইনলেস স্টিলে দু-তিন দিন পর্যন্ত শনাক্ত করা যায়।

জার্নাল অব হসপিটাল ইনফেকশনে প্রকাশিত আরেকটি গবেষণা থেকে জানা গেছে, মার্স, সার্স ও করোনাভাইরাস ও এন্ডেমিক হিউম্যান করোনাভাইরাস গ্লাস, প্লাস্টিক বা ধাতুর মতো নির্জীব পৃষ্ঠে বাঁচতে পারে প্রায় ৯ দিন পর্যন্ত। আর এই ভাইরাসগুলো নিষ্ক্রিয় করা যেতে পারে জীবাণুনাশক দিয়ে। যেগুলো এক মিনিটের মধ্যে ৬২-৭১ শতাংশ ইথানল, ০.৫ শতাংশ হাইড্রোজেন পারক্সাইড বা ০.১ শতাংশ সোডিয়াম হাইপোক্লোরাইট ধারণ করে।


করোনাভাইরাস থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য এখনও কোনো ভ্যাকসিন নেই। তাই প্রতিরোধই হচ্ছে এই রোগ থেকে বাঁচার অন্যতম উপায়। তাই সাবান ও পানি দিয়ে সঠিকভাবে হাত ধোয়া ও কিছু স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। আর মাস্ক পরতে হবে এবং যেখানে-সেখানে স্পর্শ করা এড়িয়ে চলুন।