Sponsored

যশোরে কোটি টাকার বাড়ি নিজাম উদ্দীনের

কুড়িগ্রামের আলোচিত আরডিসি নাজিম উদ্দীন চাকরিতে ঢোকার ৬ বছরের মধ্যে শুরু করেছেন চারতলা বিশিষ্ট আলীশান বাড়ি নির্মাণের কাজ। তিন ইউনিটের এই সুবিশাল বিল্ডিংয়ের প্রতিটি তলা ২৯০০ স্কয়ারফিটের। বাড়িটি নির্মাণে ইতিমধ্যে ব্যয় হয়েছে পঞ্চাশ লক্ষাধিক টাকা। নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে এক কোটি ২০ লাখ টাকা।



দিনমজুরের সন্তান নাজিম উদ্দিন নামে-বেনামে এসব সম্পদের মালিক বনে গেছেন। স্ত্রী-শ্বশুরের নামে কোটি টাকার জমি কিনে আলিশান বাড়ি নির্মাণ করেছেন। মনিরামপুর পৌরশহরে আট শতাংশ জমির ওপর পাঁচতলা বাড়ি নির্মাণাধীন তার। ইতোমধ্যে চারতলার কাজ শেষ হয়েছে। সরেজমিনে ঘুরে ও স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে এসব চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া যায়।


বাড়িটি যৌথ মালিকানার দাবি করা হলেও নাজিম ও তার স্ত্রীর বক্তব্যে রয়েছে গোঁজামিলের গন্ধ। এলাকাবাসীর ধারণা অবৈধ আয় প্রকাশ্যে না আনতেই ফাঁদা হয়েছে যৌথমালিকানার গল্প।


বাবা জামায়াত সমর্থক হলেও নানার পরিবার আওয়ামী লীগ সমর্থক হওয়ায় নাজিম উদ্দীনের উপরে ওঠার সিঁড়ি পেতে অসুবিধা হয়নি। নাজিম উদ্দীন মনিরামপুর সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাস করে মনিরামপুর সরকারি ডিগ্রি কলেজে লেখাপড়া করেন।


৩৩তম বিসিএস ক্যাডারে ২০১৪ সালে চাকরিতে জয়েন করেন নাজিম উদ্দিন। এরআগে তিনি এক্সিম ব্যাংকে কর্মরত ছিলেন বছর দেড়েক। প্রশাসন ক্যাডারে চাকরি হওয়ার মাস তিনেক পর নাজিমের বিয়ে হয় ভগবানপাড়ার বাসিন্দা সাবেক প্রধান শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাকের চতুর্থ মেয়ে সাবিনা সুলতানার সঙ্গে।  ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে চাকরি পাবার পর দিনবদল শুরু হয় নাজিমের।