Sponsored

দিল্লিতে নতুন করে হামলায় আরও এক মুসলিম নিহত

ভারতের  দিল্লিতে নতুন করে হামলায় সংখ্যালঘু আরও এক মুসলিম নিহত হয়েছেন। অব্যাহত এই সাম্প্রদায়িক হামলায় নিহত বেড়ে ৪২ জনে দাঁড়িয়েছে।



দ্য হিন্দু জানায়, আইয়ুব সাব্বির নামের ৬০ বছর বয়সী এই মুসলিম শুক্রবার নিহত হন।

এছাড়া গুরু তেজ বাহাদুর (জিটিভি) হাসপাতালে আহত আরও তিনজন মারা গেলে নিহতের সংখ্যা ৩৮ থেকে বেড়ে ৪২ জনে দাঁড়ায়।


এদিকে শুক্রবার নতুন করে হামলায় সাব্বিরের নিহতের ঘটনা দিল্লির উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় এলাকার পরিস্থিতি ‘নিয়ন্ত্রণে আছে’ দিল্লি পুলিশ মুখপাত্রের এমন দাবি প্রশ্নের মুখে ফেলেছে।


সাব্বিরের ছেলে সালমান বলেন, মাথায় আঘাত পাওয়া তার বাবাকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে মৃত্যু হয়।

তিনি বলেন, ‘শুক্রবার বাসার বাইরে না যেতে আমার বাবাকে সতর্ক করেছিলাম আমি। কিন্তু তিনি বললেন- পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক। আমরা এতোদিন ঘরে বন্দি হয়ে থাকলে কিছু আয়-রোজগার করতে পারব না।’

জিটিবি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, দগ্ধ, ছুরিকাহত, জখম এবং গুলিবিদ্ধ হয়ে লোকজন হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে আমরা ২১৫ জনকে ভর্তি করিয়েছি।

বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ) নিয়ে বিক্ষোভ বন্ধে ক্ষমতাসীন বিজেপি নেতা কপিল মিশ্রার আল্টিমেটামের কয়েক ঘণ্টা পর রবিবার রাজধানী দিল্লিতে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। সিএএ-বিরোধী মুসলিমদের ওপর সশস্ত্র হামলা শুরু করে আইনটির সমর্থকরা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, ‘হিন্দুয়োঁ কা হিন্দুস্তান’, ‘জয় শ্রীরাম’- এসব স্লোগান দিয়ে সংখ্যালঘু মুসলিমদের বাড়িঘর, দোকানপাট ও মসজিদে অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে।

বিবিসি বাংলা জানায়, পুলিশের ভূমিকা নিয়ে বিতর্ক আছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কিছু ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে, যেখানে দাঙ্গাকারীদের সঙ্গে পুলিশ দাঁড়িয়ে আছে দেখা যায়। কোথাও আবার নিজ হাতে সিসিটিভি ক্যামেরা ভেঙেছে পুলিশ।