Sponsored

একাধিক পুরুষের সাথে অভিনেত্রী তানিন সুবহার অন্তরঙ্গ ছবি ফাঁস

নায়িকা তানিন সুবহার কিছু অন্তরঙ্গ ছবি ফাঁস হয়ে গেছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। এরমাঝে সেই ছবি ভাইরাল হয়েছে। রাত থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ার বেশ কটি প্ল্যাটফরমে একাধিক অন্তরঙ্গ ছবি ঘুরতে দেখা যায়। এসব ব্যক্তিগত ছবিতে নির্দিষ্ট কোনো পুরুষ ছিলেন না, ছিলেন বিভিন্ন মুহূর্তে ভিন্ন ভিন্ন পুরুষ। এ বিষয়টি নিয়ে তানিনের নম্বরটিতে যোগাযোগ করা হলে সেটি বন্ধ পাওয়া যায়।



বরিশালের গৌরনদীর মোল্লারহাটের মেয়ে তানিন সুবহার মিডিয়ায় অভিষেক হয় ২০১৫ সালে। আজাদ কালামের পরিচালনায় ‘জমজ’ নাটকে মোশাররফ করিমের বিপরীতে অভিনয় করেন তিনি। এরপর মীর সাব্বিরের ‘আলাল দুলাল’, সেলিম রেজার ‘সেয়ানা জামাই’, নাহিদ হাসানের ‘ম্যারেজ মিডিয়া ডটকম’ সহ আরো কিছু খন্ড নাটকে অভিনয় করেছেন। এরপর চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে তানিনের। ‘অবাস্তব ভালোবাসা’, ‘মাটির পরী’, ‘স্বপ্নের সাথী’, ‘দেমাগ’, ‘তুই আমার’ প্রভৃতি ছবিতে অভিনয় করেছেন তানিন সুবহা।


জানা গেছে, স্বামী পনিরকে ২০০৮ সালে ডিভোর্স দেন তানিন। সে ঘরে তৃষিতা নামের এক কন্যা সন্তান রয়েছে।

ব্যক্তিজীবনে একাধিকবার প্রেমে জড়িয়েছেন। প্রেমের সাগরে এতটাই বুঁদ হয়ে ছিলেন যে, নিজের অন্তরঙ্গ ছবি কখন প্রকাশ্যে চলে এসেছে বুঝতে পারেননি।

সম্প্রতি রাব্বির সঙ্গে তানিনের প্রেমের গুঞ্জন শোনা যায়। রাব্বি মডেল। তাদের প্রেমের গুঞ্জন যে সত্য ছিল সেকথার প্রমাণ মিলেছে দুজনের বেশ কিছু অন্তরঙ্গ ছবি প্রকাশ্যে চলে আসায়। কোনো কোনো ছবি এতটাই বোল্ড যে, অনেকেই সেগুলো দেখে চমকে উঠেছেন। এ বিষয়ে রাব্বির মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ‘এসব এখন অতীত।’

তানিনও বিষয়টিকে ‘অতীত’ বলে এড়িয়ে গেছেন। বলেছেন, ‘অতীত ঘটনা নিয়ে টানাহেঁচড়া করে কী লাভ?'

এর আগে এই নায়িকার পার্লার ব্যবসার আড়ালে বিভিন্ন অনৈতিক কর্মকাণ্ডের খবরও আসে। যদিও সে সময় তিনি সেসব অস্বীকার করেছিলেন। তবে ওবায়দুর নামের এক ব্যবসায়ী তানিনকে গাড়ি উপহার দিয়েছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালে নিজ বিউটি পার্লারের কর্মী টুনিকে অপহরণ এবং অনৈতিক সম্পর্কে জড়ানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন তানিন সুবহা। অপহরণ ছাড়াও তার বিরুদ্ধে নানা অনৈতিক কর্মকাণ্ডের অভিযোগ রয়েছে। মামলাটি এখনও বিচারাধীন। গত ২৮শে অক্টোবর টুনি নামের এক বিউটিশিয়ানের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে তানিনকে গ্রেপ্তার করে রাজধানীর সবুজবাগ থানা পুলিশ।

এদিকে তানিনের এসব ছবি নিয়ে বিরক্ত চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্টরা। সবার মুখে একই কথা- এমন নায়িকা নামধারীদের অপকর্মের দায় পুরো ইন্ডাস্ট্রি বহন করতে পারে না। তাদের জন্যই চলচ্চিত্রের দুর্নাম হয়।